হারনেট টিভির ‘বঙ্গকন্যার তাঁতপ্রেম’ যাবে আন্তর্জাতিক ফ্যাশন বাণিজ্য মেলায়

ডেস্ক রিপোর্ট : নারী কল্যাণে এশিয়ার প্রথম টেলিভিশন হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হারনেট টিভি বাংলাদেশের ৫০ বছর পূর্তি এবং প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার দেশপ্রেমের অনুপ্রেরণায় ৭৫ তম জন্মদিন উপলক্ষে যুগোপযোগী ও যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে। সেই ধারাবাহিকতায় ২৪ অক্টোবর-২০২১ ঢাকার ট্রপিকাল ডেইজি রেস্টুরেন্টে একটি সংবাদ সম্মেলন এবং সংশ্লিষ্ট অনুষ্ঠান বিষয়ক একটি আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। তাতে সভাপতিত্ব করেন হোসনা প্রধান, চেয়ারম্যান, হারনেট টিভি এবং সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন হারনেট টিভির ফাউন্ডিং সিইও আলিশা প্রধান। ক্যানভাস

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, মিডিয়া পার্টনার বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড, আইস টুডে, ক্যানভাস, বাংলাদেশ প্রতিদিন, ডেইলি অবজারভার, প্রেস্টিজ, এসপ্লাস, উইল ম্যাগাজিন, ডিপ্লোমেটিক স্পাউস ম্যাগাজিন, নিউজ ২৪-এর প্রতিনিধিরা।

আলিশা প্রধান বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নারী নেতৃত্বে শুধু বাংলাদেশেই নয়, সারা বিশ্বে বিশ্বনন্দিত। বাংলাদেশের তাঁতবস্ত্র এবং ঐতিহ্যবাহী পোশাক পরিধান করে দেশে-বিদেশে আমাদের ঐতিহ্যকে তুলে ধরেছেন প্রতিনিয়ত। তাঁরই অনুপ্রেরণায় বাংলাদেশের এগিয়ে থাকা ৫০ জন খ্যাতনামা নারীকে চিত্রায়িত করা হয়েছে “বঙ্গকন্যার তাঁতপ্রেম” নামক ডকু ফিল্মে, খ্যাতনামা ২৫ জন দেশী ডিজাইনারদের তৈরি পোশাকে। যাতে করে দেশের সর্বসাধারণ দেশীয় কাপড় ও পোশাক পরিধান করে দেশের ঐতিহ্যকে সুপরিচিত করে তোলে দেশে ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে।’

তিনি আরও উল্লেখ করেন, ‘বাংলাদেশের মসলিনের ইতিহাস থেকে শুরু করে তাঁত শিল্প, জামদানি, এবং অন্যান্য শিল্পের কদর বর্তমান পর্যন্ত পুনরুজ্জীবিত রাখা বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গকন্যার অবদান।’সর্বশেষে, তিনি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে বলেন, ‘এই ডকুমেন্টারিকে পাঠানো হবে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ফ্যাশন বাণিজ্য মেলায়, যাতে করে পরবর্তীতে দেশে-বিদেশে যেখানে হস্তশিল্প সর্বোচ্চ বৃহত্তম শিল্প হিসেবে সমাদৃত, সেখানে বাংলাদেশের হস্তশিল্প যেন বহির্বিশ্বে অর্থনৈতিকভাবে এবং প্রসারে বিশাল চাহিদা অর্জন করতে পারে। এতে বাংলাদেশের শিল্পকারিগর তথা নারীরা হবে আরও স্বয়ংসম্পূর্ণ। উক্ত পরিকল্পনাকে বাস্তবায়ন করতে হারনেট টিভি সংশ্লিষ্ট সকল কলাকুশলীদের নিয়ে ফোরাম ও ভবিষ্যতে আরও এমন আয়োজন পরিচালনা করবে।’

বঙ্গকন্যার তাঁতপ্রেম ডকু ফিল্মটির গ্রন্থনা ও পরিচালনায় ছিলেন আলিশা প্রধান এবং ফটোশুটে বিশেষ জুয়েলারি পার্টনার ছিল আমিসে ফাইন জুয়েলারি। সেইসাথে উক্ত আয়োজনে ভেন্যু পার্টনার ছিল- চাউস রেস্টুরেন্ট ও খাজানা রেষ্টুরেন্ট, মেকআপ পার্টনার- প্রাইভ, নাহিলা হেদায়েত এবং রেড বিউটি স্টুডিও ও সেলুন, স্টাইল কনসালটেন্ট- সানজিদ আরেফিন লূনা।